ঢাকা ১০:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দুটি মাস্ক পরা কি বেশি কার্যকরী?

করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পর থেকে বদলে গেছে আমাদের স্বাভাবিক জীবনযাপন। কোনোকিছুই আর আগের মতো নেই। হাজারটা বিধি-নিষেধ সঙ্গী করেই আমাদের লড়াই চলছে। বারবার হাত পরিষ্কার করা, স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া, পরিচ্ছন্ন থাকা, মাস্ক পরার মতো স্বাস্থ্যকর অভ্যাস গড়ে উঠেছে আমাদের।

নিয়মিত মাস্ক পরলেও এর সঠিক নিয়ম জানেন না অনেকে। হয়তো ঢিলেঢালা মাস্ক পরেন বা খুলে থুতনিতে রেখে দেন। মনে রাখবেন, মাস্ক ব্যবহারের উদ্দেশ্যই হচ্ছে ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে দূরে থাকা। তাই এটি নিয়ে কোনোরকম অবহেলা বা উদাসীনতা চলবে না। আপনার সচেতনতার অভাবে এই মরণঘাতি ভাইরাস হানা দিতে পারে যেকোনো সময়।

মাস্ক কি একটি পরলেই যথেষ্ট না কি দুটি পরতে হবে তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না অনেকে। এদিকে আমেরিকান সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল সম্প্রতি পরামর্শ দিয়েছে দুটি মাস্ক পরার জন্য। আমেরিকার সংক্রমণ বিশেষজ্ঞ অ্যান্টনি ফাউচিও বলছেন একই কথা। ভাইরাস ঠেকাতে সার্জিক্যাল মাস্ক কার্যকরী। তবে এই মাস্ক পরার সময় এমনভাবে পরতে হবে যেন নাক ও মুখ ভালোভাবে আটকে রাখে। পরার সময় মাস্কের ফিতাদুটি কানের পেছনে পেচিয়ে পরলে ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকা আরও সহজ হয়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন একটির উপরে আরেকটি মাস্ক পরলে শরীরে ভাইরাস প্রবেশের পথ অনেকটাই রুদ্ধ হয়ে যায়। তাই অনেকেই এখন সার্জিক্যাল মাস্কের উপরে কাপড়ের আরেকটি মাস্ক পরছেন। এতে প্রথমদিকে নিঃশ্বাস নিতে কিছুটা অসুবিধা হলেও পরবর্তীতে অভ্যাস হয়ে যায়।

একইরকম দুটি মাস্ক পরলে কিন্তু হবে না। এমনকী কাপড়ের মাস্ক দুটি পরেও লাভ নেই। প্রথমে একটি সার্জিক্যাল মাস্ক পরে তার উপরে আরেকটি কাপড়ের মাস্ক পরতে হবে। দুটি সার্জিক্যাল মাস্ক একসঙ্গে পরবেন না। এতে নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হতে পারে। আপনি যদি এন ৯৫ মাস্ক পরেন তবে একটি পরলেই যথেষ্ট।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

অনলাইন ডেস্ক

জনপ্রিয়

দুটি মাস্ক পরা কি বেশি কার্যকরী?

প্রকাশিত: ০৪:০৩:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ এপ্রিল ২০২১

করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পর থেকে বদলে গেছে আমাদের স্বাভাবিক জীবনযাপন। কোনোকিছুই আর আগের মতো নেই। হাজারটা বিধি-নিষেধ সঙ্গী করেই আমাদের লড়াই চলছে। বারবার হাত পরিষ্কার করা, স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া, পরিচ্ছন্ন থাকা, মাস্ক পরার মতো স্বাস্থ্যকর অভ্যাস গড়ে উঠেছে আমাদের।

নিয়মিত মাস্ক পরলেও এর সঠিক নিয়ম জানেন না অনেকে। হয়তো ঢিলেঢালা মাস্ক পরেন বা খুলে থুতনিতে রেখে দেন। মনে রাখবেন, মাস্ক ব্যবহারের উদ্দেশ্যই হচ্ছে ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে দূরে থাকা। তাই এটি নিয়ে কোনোরকম অবহেলা বা উদাসীনতা চলবে না। আপনার সচেতনতার অভাবে এই মরণঘাতি ভাইরাস হানা দিতে পারে যেকোনো সময়।

মাস্ক কি একটি পরলেই যথেষ্ট না কি দুটি পরতে হবে তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন না অনেকে। এদিকে আমেরিকান সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল সম্প্রতি পরামর্শ দিয়েছে দুটি মাস্ক পরার জন্য। আমেরিকার সংক্রমণ বিশেষজ্ঞ অ্যান্টনি ফাউচিও বলছেন একই কথা। ভাইরাস ঠেকাতে সার্জিক্যাল মাস্ক কার্যকরী। তবে এই মাস্ক পরার সময় এমনভাবে পরতে হবে যেন নাক ও মুখ ভালোভাবে আটকে রাখে। পরার সময় মাস্কের ফিতাদুটি কানের পেছনে পেচিয়ে পরলে ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকা আরও সহজ হয়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন একটির উপরে আরেকটি মাস্ক পরলে শরীরে ভাইরাস প্রবেশের পথ অনেকটাই রুদ্ধ হয়ে যায়। তাই অনেকেই এখন সার্জিক্যাল মাস্কের উপরে কাপড়ের আরেকটি মাস্ক পরছেন। এতে প্রথমদিকে নিঃশ্বাস নিতে কিছুটা অসুবিধা হলেও পরবর্তীতে অভ্যাস হয়ে যায়।

একইরকম দুটি মাস্ক পরলে কিন্তু হবে না। এমনকী কাপড়ের মাস্ক দুটি পরেও লাভ নেই। প্রথমে একটি সার্জিক্যাল মাস্ক পরে তার উপরে আরেকটি কাপড়ের মাস্ক পরতে হবে। দুটি সার্জিক্যাল মাস্ক একসঙ্গে পরবেন না। এতে নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হতে পারে। আপনি যদি এন ৯৫ মাস্ক পরেন তবে একটি পরলেই যথেষ্ট।