ঢাকা ১০:৪১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২ মিনিটে ২ বার করোনার টিকা নিলেন তিনি

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৬:৫০:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১
  • 42

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একই ব্যক্তিকে ২ মিনিটে দুইবার করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হয়ে গেলেও রোগীর খোঁজ নেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার দুপুরে টিকা গ্রহণকারী বুজরুক মির্জাপুর গ্রামের বাশারুজ্জামান (৩৮) এ কথা জানান। বৃহস্পতিবার দুপুরে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে একই সময়ে দুইবার টিকা দেওয়া হয়।

টিকা গ্রহণকারী বাশারুজ্জামান জানান, বৃহস্পতিবার তিনি করোনার টিকা নিতে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে টিকার কার্ডের একটি অংশ ছিঁড়ে রুমের মধ্যে পাঠানো হলে সেখানে কর্তব্যরত সেবিকা শারমিন আক্তার তাকে করোনার টিকা পুশ করেন এবং ২ মিনিটের মাথায় আবারও টিকা পুশ করতে গেলে বাশারুজ্জামান বলেন টিকা কয়টা নিতে হয় তখন সেবিকা বলেন ১টা- এ কথা বলতে বলতেই ২য় টিকা দিয়ে দেন।

ওই সময় বাশারুজ্জামান বলেন, রুমে আমি একা, অন্য কোনো রোগী নাই। অথচ আপনি একই সময়ে ২ বার টিকা দিলেন আমার কোনো সমস্যা হবে কিনা? তখন সেবিকা বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না, আমি ভেবেছি আপনি চলে গেছেন।

তিনি আরও জানান, তাকে পরবর্তীতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কাছে নিয়ে গেলে তিনি জানান কোনো সমস্যা হবে না। আপনি নিশ্চিন্তে বাড়িতে চলে যান। তিনি বাড়িতে আসার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হাসপাতাল থেকে তার কোনো খোঁজ নেওয়া হয়নি। তবে তিনি বর্তমানে সুস্থ আছেন।

এ বিষয়ে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর টিপু আহমেদ জানান, একই সময়ে দুইবার টিকা গ্রহণকারী ব্যক্তি তার ভাতিজা। হাসপাতালে কেউ নিরাপদ না, এত বড় ভুল হয় কী করে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এতো উদাসীন যে ২৪ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও তার ভাতিজার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নেয়নি।

এ বিষয়ে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কামরুজ্জামান সোহেল বলেন, দুইবার টিকা দেওয়া হলেও তার কোনো সমস্যা হবে না। পরবর্তীতে রোগীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নেওয়ার বিষয়ে বলেন নিয়মিত খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

২ মিনিটে ২ বার করোনার টিকা নিলেন তিনি

প্রকাশিত: ০৬:৫০:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১

কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একই ব্যক্তিকে ২ মিনিটে দুইবার করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হয়ে গেলেও রোগীর খোঁজ নেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার দুপুরে টিকা গ্রহণকারী বুজরুক মির্জাপুর গ্রামের বাশারুজ্জামান (৩৮) এ কথা জানান। বৃহস্পতিবার দুপুরে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে একই সময়ে দুইবার টিকা দেওয়া হয়।

টিকা গ্রহণকারী বাশারুজ্জামান জানান, বৃহস্পতিবার তিনি করোনার টিকা নিতে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে টিকার কার্ডের একটি অংশ ছিঁড়ে রুমের মধ্যে পাঠানো হলে সেখানে কর্তব্যরত সেবিকা শারমিন আক্তার তাকে করোনার টিকা পুশ করেন এবং ২ মিনিটের মাথায় আবারও টিকা পুশ করতে গেলে বাশারুজ্জামান বলেন টিকা কয়টা নিতে হয় তখন সেবিকা বলেন ১টা- এ কথা বলতে বলতেই ২য় টিকা দিয়ে দেন।

ওই সময় বাশারুজ্জামান বলেন, রুমে আমি একা, অন্য কোনো রোগী নাই। অথচ আপনি একই সময়ে ২ বার টিকা দিলেন আমার কোনো সমস্যা হবে কিনা? তখন সেবিকা বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারব না, আমি ভেবেছি আপনি চলে গেছেন।

তিনি আরও জানান, তাকে পরবর্তীতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কাছে নিয়ে গেলে তিনি জানান কোনো সমস্যা হবে না। আপনি নিশ্চিন্তে বাড়িতে চলে যান। তিনি বাড়িতে আসার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হাসপাতাল থেকে তার কোনো খোঁজ নেওয়া হয়নি। তবে তিনি বর্তমানে সুস্থ আছেন।

এ বিষয়ে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর টিপু আহমেদ জানান, একই সময়ে দুইবার টিকা গ্রহণকারী ব্যক্তি তার ভাতিজা। হাসপাতালে কেউ নিরাপদ না, এত বড় ভুল হয় কী করে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এতো উদাসীন যে ২৪ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও তার ভাতিজার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নেয়নি।

এ বিষয়ে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. কামরুজ্জামান সোহেল বলেন, দুইবার টিকা দেওয়া হলেও তার কোনো সমস্যা হবে না। পরবর্তীতে রোগীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নেওয়ার বিষয়ে বলেন নিয়মিত খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।