ঢাকা ১২:২৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরগুনায় দুই কিশোরীকে ধর্ষণের সময় স্ত্রীর কাছে হাতেনাতে ধরা

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৯:৩৭:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ অগাস্ট ২০২১
  • 45

মোঃ রাজু রায়হানঃ বরগুনায় দুই বান্ধবীকে ধর্ষণের সময় স্ত্রীর কাছে হাতেনাতে ধরা খেলেন কথিত স্বামী। শুক্রবার দুপুরে থানা মসজিদ এলাকার আবু জাফরের ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

পরে স্ত্রী স্মৃতি আক্তারের ফোন পেয়ে বরগুনা থানা পুলিশ ধর্ষণের শিকার ওই দুই কিশোরীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় পলিয়ে যায় ধর্ষক রাব্বি। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে থানাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেফতারকৃত রাব্বি বরগুনা এলজিইডি অফিসের কর্মকর্তা কামরুল ইসলামের ছেলে। তার মা জেসমিন সুলতানা পৌরসভায় চাকরি করেন। তারা শহরের রেস্ট হাউজের পেছনে একটি ভাড়া বাসায় থাকেন।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাব্বির ভাড়া করা বাসায় উলঙ্গ অবস্থায় দুই কিশোরীসহ রাব্বিকে দেখতে পায় তার স্ত্রী। এসময় তিনি পুলিশে খবর দিলে রাব্বি পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে দুই কিশোরীকে উদ্ধার করে এবং অভিযান চালিয়ে রাব্বিকেও গ্রেফতার করে।

রাব্বি নিজেকে সরেজমিন বার্তা নামে একটি পত্রিকার সাংবাদিক বলে পরিচয় দিয়েছে। সে বিভিন্ন সময় মেয়েদের সাথে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে নানা ধরনের অপকর্ম করে থাকেন বলে জানা গেছে। মাদকের সাথেও তার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

বরগুনা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম বলেন, গ্রেফতারকৃত রাব্বির বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এর আগেও সে মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়েছিল বলে জানিয়েছেন।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

বরগুনায় দুই কিশোরীকে ধর্ষণের সময় স্ত্রীর কাছে হাতেনাতে ধরা

প্রকাশিত: ০৯:৩৭:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ অগাস্ট ২০২১

মোঃ রাজু রায়হানঃ বরগুনায় দুই বান্ধবীকে ধর্ষণের সময় স্ত্রীর কাছে হাতেনাতে ধরা খেলেন কথিত স্বামী। শুক্রবার দুপুরে থানা মসজিদ এলাকার আবু জাফরের ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

পরে স্ত্রী স্মৃতি আক্তারের ফোন পেয়ে বরগুনা থানা পুলিশ ধর্ষণের শিকার ওই দুই কিশোরীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এসময় পলিয়ে যায় ধর্ষক রাব্বি। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে থানাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

গ্রেফতারকৃত রাব্বি বরগুনা এলজিইডি অফিসের কর্মকর্তা কামরুল ইসলামের ছেলে। তার মা জেসমিন সুলতানা পৌরসভায় চাকরি করেন। তারা শহরের রেস্ট হাউজের পেছনে একটি ভাড়া বাসায় থাকেন।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাব্বির ভাড়া করা বাসায় উলঙ্গ অবস্থায় দুই কিশোরীসহ রাব্বিকে দেখতে পায় তার স্ত্রী। এসময় তিনি পুলিশে খবর দিলে রাব্বি পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে দুই কিশোরীকে উদ্ধার করে এবং অভিযান চালিয়ে রাব্বিকেও গ্রেফতার করে।

রাব্বি নিজেকে সরেজমিন বার্তা নামে একটি পত্রিকার সাংবাদিক বলে পরিচয় দিয়েছে। সে বিভিন্ন সময় মেয়েদের সাথে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে নানা ধরনের অপকর্ম করে থাকেন বলে জানা গেছে। মাদকের সাথেও তার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

বরগুনা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম বলেন, গ্রেফতারকৃত রাব্বির বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এর আগেও সে মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়েছিল বলে জানিয়েছেন।