ঢাকা ১০:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘পরীমনি-ডিবি কর্মকর্তার সম্পর্ক খতিয়ে দেখা হচ্ছে’

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৩:০৩:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ অগাস্ট ২০২১
  • 41

পরীমনি কাণ্ডে ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা (ডিবি) গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (এডিসি) গোলাম সাকলায়েনকে ডিবির দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কমিশনারের নির্দেশে তাকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শনিবার (৭ আগস্ট) ডিএমপি’র গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সাকলায়েনের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়টি আমরা শুনেছি। গণমাধ্যমের খবরর যে ভিডিও আমরা দেখেছি তা অনৈতিক। এটা সে ঠিক করেনি। এ বিষয়ে ডিএমপি কমিশনারের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তাকে আমরা আর ডিএমপিতে রাখছি না। এ বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিচ্ছি।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বলেন, এ বিষয়ে পুলিশ সদর দফতর একটি তদন্ত করবে। তার এ অনৈতিক কাজের তদন্তে ডিএমপি কমিটি গঠন করবে, তদন্ত করা হবে। ডিসিপ্লিনারি অ্যাকশন নেওয়া হবে কি না, এটা পরের বিষয়।

তিনি বলেছেন, যদি এমন কিছু হয়ে থাকে আমরা তদন্ত করে প্রমাণ পেলে এবিষয়ে ব্যবস্থা নেব। ৬ আগস্ট আমরা মামলার ডকেট বুঝে পেয়েছি, আসামির হেফাজতও বুঝে পেয়েছি। আসামিদের মধ্যে পরীমনি, মডেল মৌ, পিয়াসা ও নজরুল ইসলাম রাজ বর্তমানে সিআইডির হেফাজতে রয়েছে। তবে হেলেনা জাহাঙ্গীর ও মিশু হাসান বর্তমানে আমাদের হেফাজতে নেই। তারা অন্য মামলার তদন্তে ডিএমপির হেফাজতে।

এর আগে নায়িকা পরীমণি ও গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েনের একসঙ্গে সময় কাটানোর প্রশ্নে একে ‘অনৈতিক’ কাজ বলে অভিহিত করেছেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

‘পরীমনি-ডিবি কর্মকর্তার সম্পর্ক খতিয়ে দেখা হচ্ছে’

প্রকাশিত: ০৩:০৩:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ অগাস্ট ২০২১

পরীমনি কাণ্ডে ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা (ডিবি) গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (এডিসি) গোলাম সাকলায়েনকে ডিবির দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কমিশনারের নির্দেশে তাকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শনিবার (৭ আগস্ট) ডিএমপি’র গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সাকলায়েনের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়টি আমরা শুনেছি। গণমাধ্যমের খবরর যে ভিডিও আমরা দেখেছি তা অনৈতিক। এটা সে ঠিক করেনি। এ বিষয়ে ডিএমপি কমিশনারের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তাকে আমরা আর ডিএমপিতে রাখছি না। এ বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিচ্ছি।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বলেন, এ বিষয়ে পুলিশ সদর দফতর একটি তদন্ত করবে। তার এ অনৈতিক কাজের তদন্তে ডিএমপি কমিটি গঠন করবে, তদন্ত করা হবে। ডিসিপ্লিনারি অ্যাকশন নেওয়া হবে কি না, এটা পরের বিষয়।

তিনি বলেছেন, যদি এমন কিছু হয়ে থাকে আমরা তদন্ত করে প্রমাণ পেলে এবিষয়ে ব্যবস্থা নেব। ৬ আগস্ট আমরা মামলার ডকেট বুঝে পেয়েছি, আসামির হেফাজতও বুঝে পেয়েছি। আসামিদের মধ্যে পরীমনি, মডেল মৌ, পিয়াসা ও নজরুল ইসলাম রাজ বর্তমানে সিআইডির হেফাজতে রয়েছে। তবে হেলেনা জাহাঙ্গীর ও মিশু হাসান বর্তমানে আমাদের হেফাজতে নেই। তারা অন্য মামলার তদন্তে ডিএমপির হেফাজতে।

এর আগে নায়িকা পরীমণি ও গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েনের একসঙ্গে সময় কাটানোর প্রশ্নে একে ‘অনৈতিক’ কাজ বলে অভিহিত করেছেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।