ঢাকা ১০:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুনিয়া আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলা: চূড়ান্ত প্রতিবেদনে বাদীর নারাজি

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৩:০৬:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ অগাস্ট ২০২১
  • 21

মুনিয়া আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলা থেকে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরকে অব্যাবহিত দিয়ে পুলিশের দেওয়া চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে নারাজি (প্রতিবেদনের ওপর অনাস্থা) আবেদন করেছেন মামলার বাদী নুসরাত জাহান তানিয়া।

আজ মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে তিনি নারাজি আবেদন করেন। একইসঙ্গে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব অন্য কেনো সংস্থাকে দেওয়ার আবেদন করা হয়। এদিন সকাল ১১টা ১৭ মিনিটে রাজেশ চৌধুরীর আদালতে বাদীর জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে আদালত মামলার নথিপত্র পর্যালোচনা করে পরে আদেশ দেবেন বলে জানান।

নুসরাত জাহান তানিয়া আদালতকে বলেন, চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তাকে অবহিত করেছিলেন, ভুক্তভোগীকে হত্যা এবং ধর্ষণ সংক্রান্ত তথ্য উল্লেখ করে তিনি আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেবেন। পরবর্তীতে আসামিকে অব্যাহতি দিয়ে আদালতে যে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে তাকে কিছু জানানো হয়নি। বাদীপক্ষের আইনজীবী মাসুদ সালাউদ্দিন মামলার তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখিত ঘটনার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি দাবি করেন, আসামিপক্ষের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে তদন্ত কর্মকর্তা ওই প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন, যা গ্রহণযোগ্য নয়। গত ১৯ জুলাই গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও মুনিয়া আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান বসুন্ধরার এমডি সায়েম সোবহান আনভীরকে অব্যাবহিত দিয়ে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেন।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

মুনিয়া আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলা: চূড়ান্ত প্রতিবেদনে বাদীর নারাজি

প্রকাশিত: ০৩:০৬:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ অগাস্ট ২০২১

মুনিয়া আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলা থেকে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরকে অব্যাবহিত দিয়ে পুলিশের দেওয়া চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে নারাজি (প্রতিবেদনের ওপর অনাস্থা) আবেদন করেছেন মামলার বাদী নুসরাত জাহান তানিয়া।

আজ মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরীর আদালতে তিনি নারাজি আবেদন করেন। একইসঙ্গে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব অন্য কেনো সংস্থাকে দেওয়ার আবেদন করা হয়। এদিন সকাল ১১টা ১৭ মিনিটে রাজেশ চৌধুরীর আদালতে বাদীর জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে আদালত মামলার নথিপত্র পর্যালোচনা করে পরে আদেশ দেবেন বলে জানান।

নুসরাত জাহান তানিয়া আদালতকে বলেন, চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তাকে অবহিত করেছিলেন, ভুক্তভোগীকে হত্যা এবং ধর্ষণ সংক্রান্ত তথ্য উল্লেখ করে তিনি আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেবেন। পরবর্তীতে আসামিকে অব্যাহতি দিয়ে আদালতে যে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে তাকে কিছু জানানো হয়নি। বাদীপক্ষের আইনজীবী মাসুদ সালাউদ্দিন মামলার তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখিত ঘটনার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি দাবি করেন, আসামিপক্ষের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে তদন্ত কর্মকর্তা ওই প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন, যা গ্রহণযোগ্য নয়। গত ১৯ জুলাই গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও মুনিয়া আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান বসুন্ধরার এমডি সায়েম সোবহান আনভীরকে অব্যাবহিত দিয়ে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেন।