ঢাকা ১০:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা : জড়িতদের বিচার দাবি নুরের

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৬:১৩:৫২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অগাস্ট ২০২১
  • 22

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা দেওয়ার ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করেছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) দুপুরে আসিফ নজরুলকে হয়রানি ও হুমকির প্রতিবাদ, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল এবং আটক ছাত্র-যুব নেতাদের মুক্তির দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে ‘সচেতন নাগরিক সমাবেশে’ এ দাবি জানান তিনি।

সমাবেশে নুর বলেন, সংবিধান যেখানে নাগরিকদের সভা-সমাবেশ, মিছিল-মিটিং করার স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে, সেখানে দুই লাইনের স্ট্যাটাস দেওয়ার কারণে ছাত্রলীগের ক্যাডাররা, আবরারের হত্যাকারী, চাঁদাবাজ-টেন্ডারবাজরা অধ্যাপক আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা ঝুলিয়েছে।

নুর বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে বলতে চাই, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন চেয়ারম্যানের কক্ষে কীভাবে ছাত্রলীগের দুর্বৃত্তরা তালা লাগায়? আপনারা যদি ছাত্রলীগের এ দুর্বৃত্তদের প্রশ্রয় দেন, গণতন্ত্রকামী ছাত্র-শিক্ষক-জনতাকে হয়রানি করেন এর পরিণতি ভালো হবে না।

বিচার দাবি করে নুর বলেন, আসিফ নজরুল স্যারের লাঞ্ছনা ও অপমানের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের অতিদ্রুত আইনের আওতায় আনতে হবে এবং নাটকীয়তা বাদ দিয়ে সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁনের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি প্রমুখ।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা : জড়িতদের বিচার দাবি নুরের

প্রকাশিত: ০৬:১৩:৫২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অগাস্ট ২০২১

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা দেওয়ার ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করেছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) দুপুরে আসিফ নজরুলকে হয়রানি ও হুমকির প্রতিবাদ, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল এবং আটক ছাত্র-যুব নেতাদের মুক্তির দাবিতে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে ‘সচেতন নাগরিক সমাবেশে’ এ দাবি জানান তিনি।

সমাবেশে নুর বলেন, সংবিধান যেখানে নাগরিকদের সভা-সমাবেশ, মিছিল-মিটিং করার স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে, সেখানে দুই লাইনের স্ট্যাটাস দেওয়ার কারণে ছাত্রলীগের ক্যাডাররা, আবরারের হত্যাকারী, চাঁদাবাজ-টেন্ডারবাজরা অধ্যাপক আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা ঝুলিয়েছে।

নুর বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে বলতে চাই, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন চেয়ারম্যানের কক্ষে কীভাবে ছাত্রলীগের দুর্বৃত্তরা তালা লাগায়? আপনারা যদি ছাত্রলীগের এ দুর্বৃত্তদের প্রশ্রয় দেন, গণতন্ত্রকামী ছাত্র-শিক্ষক-জনতাকে হয়রানি করেন এর পরিণতি ভালো হবে না।

বিচার দাবি করে নুর বলেন, আসিফ নজরুল স্যারের লাঞ্ছনা ও অপমানের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের অতিদ্রুত আইনের আওতায় আনতে হবে এবং নাটকীয়তা বাদ দিয়ে সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁনের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি প্রমুখ।