ঢাকা ০২:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেশকে বিরাজনীতিকরণের ষড়যন্ত্র চলছে : মোস্তফা

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ১২:৫৪:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অগাস্ট ২০২১
  • 31

সরকারের অতিরিক্ত আমলানির্ভরতার কারণে রাজনৈতিক শূণ্যতা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র চলছে বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, রাজনীতির নামে এখন যা চলছে তা হলো তোষননীতি। এখন রাজনীতিবিদদের চেয়ে আমলাদের বেশি প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। ফলে রাজনীতিশূন্য, কোথাও রাজনীতি নেই। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে দেশকে বিরাজনীতিকরণের ষড়যন্ত্র চলছে ।

সোমবার (২৩ আগস্ট) নয়াপলটনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে বাংলাদেশ ন্যাপ’র সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রাক্তন মন্ত্রী জননেতা শফিকুল গানি স্বপনের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ আয়োজিত স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় রাজনীতিকদের মেরুদন্ড সোজা করে দাড়াতে হবে। দেশের দুর্দিনে দেশপ্রেমিক ও জনবান্ধব রাজনীতিকেরা যদি দায়িত্ব ও ঝুঁকি না নেন তাহলে আগামীতে দেশকে আরো ভয়াবহ দুর্যোগের মুখোমুখি হতে হবে। তাই দেশ ও জাতির কল্যাণে ব্যাপক গণঐক্য-গণসংগ্রাম জোরদার করতে হবে।

তিনি বলেন, শফিকুল গানি স্বপন ছিলেন সমাজ পরিবর্তনে গণতান্ত্রিক সংগ্রামের আদর্শে উদ্বুদ্ধ জননন্দিত ও আত্মনিবেদিত রাজনৈতিক নেতা ও সংগঠক। তিনি কখনো আত্মাবিক্রি করেননি। দেশের সাম্রাজ্যবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও গণতান্ত্রিক আন্দোলনেও তিনি অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন। হার না মানা এই নেতার জীবন ও কর্ম গণতান্ত্রিক আন্দোলনে মানুষের অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে।

তিনি বলেন, একটা রাষ্ট্রে যখন রাজনীতির নিয়ন্তা হয় আমলাতন্ত্র, তখন সেই রাষ্ট্র একটা ঝুঁকির মধ্যে পড়তে বাধ্য। রাজনীতিহীন একটা রাষ্ট্র হলো রক্তশূন্য এক মানুষের মতো। জনমনে প্রশ্ন বাংলাদেশ কি ক্রমশ রক্তশূন্য হয়ে পড়ছে?

বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ গণ সংস্কৃতি দল-বাগসদ সভাপতি সরদার শামস আল মামুন (চাষী মামুন), এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, জাতীয় লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডঃ শাহরিয়ার ইফতেখার ফুয়াদ, জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান মিজু, গণ রাজনৈতিক জোট-গর্জো সভাপ্রধান সৈয়দ মঈনুজ্জামান লিটু, গণতান্ত্রি ঐক্যের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম, দলের ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব আতিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন, মহানগর যুগ্ম সম্পাদক মো. শামিম ভুইয়া প্রমুখ।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

দেশকে বিরাজনীতিকরণের ষড়যন্ত্র চলছে : মোস্তফা

প্রকাশিত: ১২:৫৪:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অগাস্ট ২০২১

সরকারের অতিরিক্ত আমলানির্ভরতার কারণে রাজনৈতিক শূণ্যতা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র চলছে বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, রাজনীতির নামে এখন যা চলছে তা হলো তোষননীতি। এখন রাজনীতিবিদদের চেয়ে আমলাদের বেশি প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। ফলে রাজনীতিশূন্য, কোথাও রাজনীতি নেই। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে দেশকে বিরাজনীতিকরণের ষড়যন্ত্র চলছে ।

সোমবার (২৩ আগস্ট) নয়াপলটনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে বাংলাদেশ ন্যাপ’র সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রাক্তন মন্ত্রী জননেতা শফিকুল গানি স্বপনের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ আয়োজিত স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় রাজনীতিকদের মেরুদন্ড সোজা করে দাড়াতে হবে। দেশের দুর্দিনে দেশপ্রেমিক ও জনবান্ধব রাজনীতিকেরা যদি দায়িত্ব ও ঝুঁকি না নেন তাহলে আগামীতে দেশকে আরো ভয়াবহ দুর্যোগের মুখোমুখি হতে হবে। তাই দেশ ও জাতির কল্যাণে ব্যাপক গণঐক্য-গণসংগ্রাম জোরদার করতে হবে।

তিনি বলেন, শফিকুল গানি স্বপন ছিলেন সমাজ পরিবর্তনে গণতান্ত্রিক সংগ্রামের আদর্শে উদ্বুদ্ধ জননন্দিত ও আত্মনিবেদিত রাজনৈতিক নেতা ও সংগঠক। তিনি কখনো আত্মাবিক্রি করেননি। দেশের সাম্রাজ্যবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও গণতান্ত্রিক আন্দোলনেও তিনি অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন। হার না মানা এই নেতার জীবন ও কর্ম গণতান্ত্রিক আন্দোলনে মানুষের অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে।

তিনি বলেন, একটা রাষ্ট্রে যখন রাজনীতির নিয়ন্তা হয় আমলাতন্ত্র, তখন সেই রাষ্ট্র একটা ঝুঁকির মধ্যে পড়তে বাধ্য। রাজনীতিহীন একটা রাষ্ট্র হলো রক্তশূন্য এক মানুষের মতো। জনমনে প্রশ্ন বাংলাদেশ কি ক্রমশ রক্তশূন্য হয়ে পড়ছে?

বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ গণ সংস্কৃতি দল-বাগসদ সভাপতি সরদার শামস আল মামুন (চাষী মামুন), এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, জাতীয় লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডঃ শাহরিয়ার ইফতেখার ফুয়াদ, জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান মিজু, গণ রাজনৈতিক জোট-গর্জো সভাপ্রধান সৈয়দ মঈনুজ্জামান লিটু, গণতান্ত্রি ঐক্যের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম, দলের ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব আতিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন, মহানগর যুগ্ম সম্পাদক মো. শামিম ভুইয়া প্রমুখ।