ঢাকা ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সারাক্ষণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আমার দিকে নজর রাখছে: আসিফ

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০২:৪২:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ অগাস্ট ২০২১
  • 36

বাংলা গানের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর। গানের পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নানা ধরণের স্ট্যাটাস দিয়েও আলোচনায় থেকেছেন তিনি। সমসাময়িক বিষয়ের পাশাপাশি ব্যক্তিজীবনের নানা প্রসঙ্গেও প্রায়ই কথা বলে থাকেন এই শিল্পী।

সম্প্রতি তার জীবনের কিছু ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে এই সংগীতশিল্পী দীর্ঘ এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘এই শোবিজের সবচেয়ে আনস্মার্ট লোক আমি। ড্রেস কোড মানি না। অভিজাত ক্লাবে কখনো কখনো ঢুকতে দেয় না, যেতেও চাই না। আমার একটা ছোট্ট আকাশ আছে এই কংক্রীটের শহরে। চির উন্নত মম শির- এই এঙ্গেলে হয় চলি, নয় চালাই। আমি বাংলাদেশের একজন সাধারণ গায়ক।’

সরকার ও প্রশাসনের প্রসঙ্গ টেনে তিনি লিখেছেন, ‘বর্তমানের ভোটবিহীন এই সরকারের সেরা বিরোধীদের একজন আমি। আবার করোনার টিকা প্রথম চালানেই নিয়ে নিয়েছি। রাজনৈতিক প্রোপাগান্ডার গপ্পো অনেক সময় নিয়ে করা যাবে। একটা সরকার যতই অসৎ হউক না কেন, ষোল কোটি নাগরিককে টিকা দিয়ে মেরে ফেলবে না। এটা সম্ভব না। আমার অভ্যাস বরাবর সোজা চলা। এজন্য জাতির ভালোবাসা এবং গালির সান্নিধ্যে ধন্য হয়েই যাচ্ছি প্রতিমূহুর্তে। আগে মারপিট করলে মুরুব্বীরা সেটিং দিতেন, এখন কথা বললে প্রশাসনের লোকজনের তাৎক্ষণিকভাবে প্রয়োগযোগ্য আইনগুলোর ধারা মনে হয়ে যায়। আমার অফিসে বহুবার বিভিন্ন বাহিনী রেইড করেছে, ইনফ্যাক্ট আমিই চাই তাদের নজরদারীতে থাকতে। একমাত্র সিআইডি গ্রেপ্তার করেছে, আবার সম্মানও দিয়েছে। আমি একটা ব্যাপারে খুব খুশী, সারাক্ষণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আমার দিকে নজর রাখছে, এতে আমার নিরাপত্তা সুসংহত হয়েছে। যদিও আমি এসব বিষয়ে ভাবলেষহীন একটা ক্লীব নাগরিক মাত্র।’

প্রশাসনিক বাহিনীর কাছ থেকে সবচেয়ে বেশি সুবিধাভোগী সম্মানিত নাগরিক উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, ‘আজকে ভোরে হাতিরঝিল মোড়ে নিজেই থেমে সার্জেন্ট ভাই ব্রাদারদের সাথে হ্যালো করে ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখিয়েছি। উনারা সম্মান দিয়েই আমার সাথে আলাপ করেছেন। কোনো বাহিনী আর জনগণের মধ্যে পার্থক্য থাকা উচিত না। অতি উৎসাহিত কোনো প্রশাসনিক আইটেমের খাদ্য আসলে আমার কাছে একদমই নাই। আমিই প্রশাসনিক বাহিনীর কাছ থেকে পাওয়া সবচেয়ে সুবিধাভোগী সম্মানিত নাগরিক, রাতের ঢাকার রাজপথে ঘুরতেই থাকি। তারাও জানে আসিফ আকবর খুনী না, গায়ক। এসব গল্প আসবে আমার বায়োগ্রাফিতে। এই দেশে সব পেশায় খারাপ ভালো আছে, কোনো পেশাই মূল টার্গেট হতে পারে না। রাস্তায় চালচলনে অবশ্যই আমাদের সংযত হতে হবে। প্রশাসনে নতুন স্মার্ট প্রজন্ম দায়িত্ব নেওয়ার দ্বারপ্রান্তে। তাদেরকে পুরনো ভোঁতা রেষারেষীর মন্ত্র দিয়ে লাভ হবে না। সুন্দর বাংলাদেশটা আমাদের সবারই স্বপ্নের চাহিদা। বুঝলে ভালো, না বুঝলে আরো ভালো… ভালোবাসা অবিরাম।’

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

সারাক্ষণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আমার দিকে নজর রাখছে: আসিফ

প্রকাশিত: ০২:৪২:৫২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ অগাস্ট ২০২১

বাংলা গানের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর। গানের পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নানা ধরণের স্ট্যাটাস দিয়েও আলোচনায় থেকেছেন তিনি। সমসাময়িক বিষয়ের পাশাপাশি ব্যক্তিজীবনের নানা প্রসঙ্গেও প্রায়ই কথা বলে থাকেন এই শিল্পী।

সম্প্রতি তার জীবনের কিছু ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে এই সংগীতশিল্পী দীর্ঘ এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘এই শোবিজের সবচেয়ে আনস্মার্ট লোক আমি। ড্রেস কোড মানি না। অভিজাত ক্লাবে কখনো কখনো ঢুকতে দেয় না, যেতেও চাই না। আমার একটা ছোট্ট আকাশ আছে এই কংক্রীটের শহরে। চির উন্নত মম শির- এই এঙ্গেলে হয় চলি, নয় চালাই। আমি বাংলাদেশের একজন সাধারণ গায়ক।’

সরকার ও প্রশাসনের প্রসঙ্গ টেনে তিনি লিখেছেন, ‘বর্তমানের ভোটবিহীন এই সরকারের সেরা বিরোধীদের একজন আমি। আবার করোনার টিকা প্রথম চালানেই নিয়ে নিয়েছি। রাজনৈতিক প্রোপাগান্ডার গপ্পো অনেক সময় নিয়ে করা যাবে। একটা সরকার যতই অসৎ হউক না কেন, ষোল কোটি নাগরিককে টিকা দিয়ে মেরে ফেলবে না। এটা সম্ভব না। আমার অভ্যাস বরাবর সোজা চলা। এজন্য জাতির ভালোবাসা এবং গালির সান্নিধ্যে ধন্য হয়েই যাচ্ছি প্রতিমূহুর্তে। আগে মারপিট করলে মুরুব্বীরা সেটিং দিতেন, এখন কথা বললে প্রশাসনের লোকজনের তাৎক্ষণিকভাবে প্রয়োগযোগ্য আইনগুলোর ধারা মনে হয়ে যায়। আমার অফিসে বহুবার বিভিন্ন বাহিনী রেইড করেছে, ইনফ্যাক্ট আমিই চাই তাদের নজরদারীতে থাকতে। একমাত্র সিআইডি গ্রেপ্তার করেছে, আবার সম্মানও দিয়েছে। আমি একটা ব্যাপারে খুব খুশী, সারাক্ষণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আমার দিকে নজর রাখছে, এতে আমার নিরাপত্তা সুসংহত হয়েছে। যদিও আমি এসব বিষয়ে ভাবলেষহীন একটা ক্লীব নাগরিক মাত্র।’

প্রশাসনিক বাহিনীর কাছ থেকে সবচেয়ে বেশি সুবিধাভোগী সম্মানিত নাগরিক উল্লেখ করে তিনি লিখেছেন, ‘আজকে ভোরে হাতিরঝিল মোড়ে নিজেই থেমে সার্জেন্ট ভাই ব্রাদারদের সাথে হ্যালো করে ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখিয়েছি। উনারা সম্মান দিয়েই আমার সাথে আলাপ করেছেন। কোনো বাহিনী আর জনগণের মধ্যে পার্থক্য থাকা উচিত না। অতি উৎসাহিত কোনো প্রশাসনিক আইটেমের খাদ্য আসলে আমার কাছে একদমই নাই। আমিই প্রশাসনিক বাহিনীর কাছ থেকে পাওয়া সবচেয়ে সুবিধাভোগী সম্মানিত নাগরিক, রাতের ঢাকার রাজপথে ঘুরতেই থাকি। তারাও জানে আসিফ আকবর খুনী না, গায়ক। এসব গল্প আসবে আমার বায়োগ্রাফিতে। এই দেশে সব পেশায় খারাপ ভালো আছে, কোনো পেশাই মূল টার্গেট হতে পারে না। রাস্তায় চালচলনে অবশ্যই আমাদের সংযত হতে হবে। প্রশাসনে নতুন স্মার্ট প্রজন্ম দায়িত্ব নেওয়ার দ্বারপ্রান্তে। তাদেরকে পুরনো ভোঁতা রেষারেষীর মন্ত্র দিয়ে লাভ হবে না। সুন্দর বাংলাদেশটা আমাদের সবারই স্বপ্নের চাহিদা। বুঝলে ভালো, না বুঝলে আরো ভালো… ভালোবাসা অবিরাম।’