ঢাকা ১১:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিশুশিল্পী কেয়া মনি টিভি নাটকে ব্যস্ত অভিনেত্রী

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৬:০২:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ অগাস্ট ২০২১
  • 34

অল্প সময়েই দেশীয় শোবিজে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তরুণ প্রজন্মের অভিনেত্রী কেয়া মনি। মিষ্টি হাসির এই মিষ্টি মেয়ে উত্তরবঙ্গের মেয়ে। অভিনেত্রী কেয়া মনি চুটিয়ে কাজ করছেন টিভি মিডিয়ায়। কেয়া মনি এখন পরিণত বয়সে তারকা খ্যাতি পেলেও তার শোবিজে আগমন একজন শিশুশিল্পী হিসেবে। শৈশবেই তার নাচ, গান, চিত্রাংকন ও অভিনয়ের হাতেখড়ি। যুক্ত ছিলেন থিয়েটারেও। পাশাপাশি তার লেখালেখির হাতটাও ভীষণ ভালো৷ অর্থাৎ শিল্প সংস্কৃতির বিভিন্ন মাধ্যমেই কেয়া মনির উপস্থিতি সেই শিশু বয়স থেকেই। তেমনি বর্তমানে কেয়া মনি অভিনয় অর্থাৎ শোবিজ ক্যারিয়ারের পাশাপাশি চালিয়ে যাচ্ছেন তার একাডেমিক ক্যারিয়ারও। তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ ল” কলেজে এলএলবি তে পড়াশোনা করছেন।

এই প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা প্রসঙ্গে কেয়া মনি জানান, সম্প্রতি তিনি ঈশান থ্রি পিস বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেলিং করেছেন। এটি নির্মাণ করেছেন,আবুল কালাম আজাদ। কেয়া মনি জানান, খুব শীঘ্রি এটির প্রচার শুরু হবে। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটি দারুন একটি কাজ হয়েছে । আমি বিশ্বাস করি – এটি আমার শোবিজ ক্যারিয়ারে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

চলতি সময়ে ছোটপর্দায় নিয়মিত কাজ করছেন কেয়া মনি। বাংলাদেশ টেলিভিশন সহ সকল বেসরকারী টিভি চ্যানেলে তার কাজ প্রচার হয়েছে ও হচ্ছে।অভিনয়শিল্পীদের তালিকায় ক-বিভাগের অভিনেত্রী তিনি। বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) আনন্দমেলা ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে শিশুশিল্পী হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। এখন পড়াশোনার পাশাপাশি নিয়মিত নাটকে অভিনয় করেছেন।

বর্তমান ব্যস্ততা ও অভিনয় জগৎ নিয়ে কেয়া মনি বলেন, আমি চির চঞ্চল, চির চলমান। অবস্থানে কিংবা অস্তিত্বে কোথাও আমি স্থবির নই। এগিয়ে চলার সভ্যতায় আমার জন্ম আর নিজেকে বদলে উপযুক্ত অভিনয়শিল্পী হিসেবে গড়ে তোলার সাধনাই আমার জীবন। নিত্য নব নব রূপে আবিস্কার করছি, আমার ভেতরের আমিটাকে। আমি কভু শান্ত, কভু অশান্ত, দারুণ স্বেচ্ছাচারী। যারা নিজের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে শ্রম দেয় না, নিজেকে বদলায় না, নিজেকে তৈরি করতে জানে না, তারা স্থবির। তারা মৃত্যুর অপেক্ষায় বেঁচে থাকে। আমি তাদের দলে নই। শিল্প – সংস্কৃতি আমার রক্তে মিশে আছে। শোবিজে থেকে ফিরে যেতে নয়, বরং নিজেকে উপযুক্ত তৈরি করে টিকে থাকতে চাই। আর তাই অভিনয় ও নাটকের নানাবিধ চরিএের প্রয়োজনে, বাই সাইকেল চালানো, মোটর বাইক চালানো শিখেছি ও নানাবিধ কঠিন কাজ রপ্ত করেছি। বাকিটা মহান সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছা। বর্তমানে বিভিন্ন চ্যানেলে আমার বেশ কিছু একক ও ধারাবাহিক নাটক প্রচার হচ্ছে। এগুলো হলো ধারাবাহিক নাটক চাটাম ঘর (বাংলা ভিশন), ভিলেজ হট্টগোল (আরটিভি), তোমার গল্পে আমি (বাংলাভিশন), বেমানান (মাছরাঙ্গা টেলিভিশন), মায়া মাসনদ (এনটিভি), জমিদার বাড়ী (বৈশাখী টিভি) ইত্যাদি।

টেলিভিশন মিডিয়ায় কেয়া মনির কাজের তালিকাটা কিন্তু বেশ লম্বা। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য কিছু একক নাটক হলো – মেনু কার্ড, সিনিয়র গার্লফ্রেন্ড, ভালবাসার মায়াজাল, প্যাচগী বাবুল, স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর, গোপন বউ, আজব বউ, অবাক প্রেম, ভুতু ময়রার গুপ্তধন, তুমি আমার জানেমান, অনুশোচনা, রাজনীতি, জোনাকি জ্বলে, সিনিয়র জুনিয়র, ছেলেটি সত্যিই এসেছিল, বিদেশ ফেরত, A day without phone, আমি যে কে তোমার ইত্যাদি।

তার অভিনীত জনপ্রিয় ধারাবাহিক ও একক নাটক এছাড়াও বেশকিছু বিজ্ঞাপনচিত্র, ওভিসি এবং বেশ কিছু স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক ডকুমেন্টারিতে কাজ করেছেন তিনি।

বগুড়ার মেয়ে কেয়া মনি শোবিজ পথচলা নিয়ে চলতি সময়ে যেমন ব্যস্ত আছেন, তেমনি শোবিজ নিয়ে তার চূড়ান্ত স্বপ্নও নির্ধারণ করে নিয়েছেন। শোবিজ নিয়ে তার স্বপ্নের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার স্বপ্ন হলো – একজন দক্ষ ও জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলা। ভালো ভালো কাজের মাধ্যমে নিজের শিল্পীস্বত্ত্বার পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটিয়ে শিল্পী জীবনের শেষদিন পর্যন্ত নিজেকে সম্মানের সঙ্গে টিকিয়ে রাখতে চাই।

বিনোদনের বৃহৎ মাধ্যম চলচ্চিত্রে অভিনয়েরও ইচ্ছে রয়েছে কেয়া মনি’র। এই ইচ্ছে নিয়ে তিনি বলেন, চলচ্চিত্র হলো বিনোদনের সব চাইতে বড় মাধ্যম। এই মাধ্যমে কাজ করাটা একজন অভিনয় শিল্পীর অনেক বড় স্বপ্ন। তাই আমিও স্বপ্ন দেখছি এই মাধ্যম নিয়ে। ইচ্ছে আছে ভালো সুযোগ পেলে চলচ্চিত্র মাধ্যমে নিজের অভিনয় প্রতিভা দিয়ে আশাকরি দর্শকদের মন জয় করে নিতেপারবো।

কথামালার শেষে কেয়া মনি বলেন, প্রতিনিয়ত ভিন্ন ভিন্ন গল্পে নানামুখী চরিত্রে অভিনয় করে নিজেকে আরও দক্ষ অভিনেত্রী হিসেবে তৈরিতে আমি সচেষ্ট রয়েছি। ভালো গল্প ও চরিত্রের কাজের প্রতি আমার দুর্বলতা রয়েছে। তাই সবাইকে আগামী দিনে আরও ভালো কাজ উপহার দিতে চাই। দর্শক – ভক্তের ভালোবাসা ও দোয়া থাকলে আমি অবশ্যই একজন সুদক্ষ অভিনয়শিল্পী হয়ে আমার স্বপ্নের উচ্চতায় পৌঁছুতে পারবো বলেই বিশ্বাস করি।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

শিশুশিল্পী কেয়া মনি টিভি নাটকে ব্যস্ত অভিনেত্রী

প্রকাশিত: ০৬:০২:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৪ অগাস্ট ২০২১

অল্প সময়েই দেশীয় শোবিজে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তরুণ প্রজন্মের অভিনেত্রী কেয়া মনি। মিষ্টি হাসির এই মিষ্টি মেয়ে উত্তরবঙ্গের মেয়ে। অভিনেত্রী কেয়া মনি চুটিয়ে কাজ করছেন টিভি মিডিয়ায়। কেয়া মনি এখন পরিণত বয়সে তারকা খ্যাতি পেলেও তার শোবিজে আগমন একজন শিশুশিল্পী হিসেবে। শৈশবেই তার নাচ, গান, চিত্রাংকন ও অভিনয়ের হাতেখড়ি। যুক্ত ছিলেন থিয়েটারেও। পাশাপাশি তার লেখালেখির হাতটাও ভীষণ ভালো৷ অর্থাৎ শিল্প সংস্কৃতির বিভিন্ন মাধ্যমেই কেয়া মনির উপস্থিতি সেই শিশু বয়স থেকেই। তেমনি বর্তমানে কেয়া মনি অভিনয় অর্থাৎ শোবিজ ক্যারিয়ারের পাশাপাশি চালিয়ে যাচ্ছেন তার একাডেমিক ক্যারিয়ারও। তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ ল” কলেজে এলএলবি তে পড়াশোনা করছেন।

এই প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা প্রসঙ্গে কেয়া মনি জানান, সম্প্রতি তিনি ঈশান থ্রি পিস বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেলিং করেছেন। এটি নির্মাণ করেছেন,আবুল কালাম আজাদ। কেয়া মনি জানান, খুব শীঘ্রি এটির প্রচার শুরু হবে। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটি দারুন একটি কাজ হয়েছে । আমি বিশ্বাস করি – এটি আমার শোবিজ ক্যারিয়ারে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

চলতি সময়ে ছোটপর্দায় নিয়মিত কাজ করছেন কেয়া মনি। বাংলাদেশ টেলিভিশন সহ সকল বেসরকারী টিভি চ্যানেলে তার কাজ প্রচার হয়েছে ও হচ্ছে।অভিনয়শিল্পীদের তালিকায় ক-বিভাগের অভিনেত্রী তিনি। বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) আনন্দমেলা ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে শিশুশিল্পী হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। এখন পড়াশোনার পাশাপাশি নিয়মিত নাটকে অভিনয় করেছেন।

বর্তমান ব্যস্ততা ও অভিনয় জগৎ নিয়ে কেয়া মনি বলেন, আমি চির চঞ্চল, চির চলমান। অবস্থানে কিংবা অস্তিত্বে কোথাও আমি স্থবির নই। এগিয়ে চলার সভ্যতায় আমার জন্ম আর নিজেকে বদলে উপযুক্ত অভিনয়শিল্পী হিসেবে গড়ে তোলার সাধনাই আমার জীবন। নিত্য নব নব রূপে আবিস্কার করছি, আমার ভেতরের আমিটাকে। আমি কভু শান্ত, কভু অশান্ত, দারুণ স্বেচ্ছাচারী। যারা নিজের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে শ্রম দেয় না, নিজেকে বদলায় না, নিজেকে তৈরি করতে জানে না, তারা স্থবির। তারা মৃত্যুর অপেক্ষায় বেঁচে থাকে। আমি তাদের দলে নই। শিল্প – সংস্কৃতি আমার রক্তে মিশে আছে। শোবিজে থেকে ফিরে যেতে নয়, বরং নিজেকে উপযুক্ত তৈরি করে টিকে থাকতে চাই। আর তাই অভিনয় ও নাটকের নানাবিধ চরিএের প্রয়োজনে, বাই সাইকেল চালানো, মোটর বাইক চালানো শিখেছি ও নানাবিধ কঠিন কাজ রপ্ত করেছি। বাকিটা মহান সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছা। বর্তমানে বিভিন্ন চ্যানেলে আমার বেশ কিছু একক ও ধারাবাহিক নাটক প্রচার হচ্ছে। এগুলো হলো ধারাবাহিক নাটক চাটাম ঘর (বাংলা ভিশন), ভিলেজ হট্টগোল (আরটিভি), তোমার গল্পে আমি (বাংলাভিশন), বেমানান (মাছরাঙ্গা টেলিভিশন), মায়া মাসনদ (এনটিভি), জমিদার বাড়ী (বৈশাখী টিভি) ইত্যাদি।

টেলিভিশন মিডিয়ায় কেয়া মনির কাজের তালিকাটা কিন্তু বেশ লম্বা। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য কিছু একক নাটক হলো – মেনু কার্ড, সিনিয়র গার্লফ্রেন্ড, ভালবাসার মায়াজাল, প্যাচগী বাবুল, স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর, গোপন বউ, আজব বউ, অবাক প্রেম, ভুতু ময়রার গুপ্তধন, তুমি আমার জানেমান, অনুশোচনা, রাজনীতি, জোনাকি জ্বলে, সিনিয়র জুনিয়র, ছেলেটি সত্যিই এসেছিল, বিদেশ ফেরত, A day without phone, আমি যে কে তোমার ইত্যাদি।

তার অভিনীত জনপ্রিয় ধারাবাহিক ও একক নাটক এছাড়াও বেশকিছু বিজ্ঞাপনচিত্র, ওভিসি এবং বেশ কিছু স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক ডকুমেন্টারিতে কাজ করেছেন তিনি।

বগুড়ার মেয়ে কেয়া মনি শোবিজ পথচলা নিয়ে চলতি সময়ে যেমন ব্যস্ত আছেন, তেমনি শোবিজ নিয়ে তার চূড়ান্ত স্বপ্নও নির্ধারণ করে নিয়েছেন। শোবিজ নিয়ে তার স্বপ্নের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার স্বপ্ন হলো – একজন দক্ষ ও জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলা। ভালো ভালো কাজের মাধ্যমে নিজের শিল্পীস্বত্ত্বার পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটিয়ে শিল্পী জীবনের শেষদিন পর্যন্ত নিজেকে সম্মানের সঙ্গে টিকিয়ে রাখতে চাই।

বিনোদনের বৃহৎ মাধ্যম চলচ্চিত্রে অভিনয়েরও ইচ্ছে রয়েছে কেয়া মনি’র। এই ইচ্ছে নিয়ে তিনি বলেন, চলচ্চিত্র হলো বিনোদনের সব চাইতে বড় মাধ্যম। এই মাধ্যমে কাজ করাটা একজন অভিনয় শিল্পীর অনেক বড় স্বপ্ন। তাই আমিও স্বপ্ন দেখছি এই মাধ্যম নিয়ে। ইচ্ছে আছে ভালো সুযোগ পেলে চলচ্চিত্র মাধ্যমে নিজের অভিনয় প্রতিভা দিয়ে আশাকরি দর্শকদের মন জয় করে নিতেপারবো।

কথামালার শেষে কেয়া মনি বলেন, প্রতিনিয়ত ভিন্ন ভিন্ন গল্পে নানামুখী চরিত্রে অভিনয় করে নিজেকে আরও দক্ষ অভিনেত্রী হিসেবে তৈরিতে আমি সচেষ্ট রয়েছি। ভালো গল্প ও চরিত্রের কাজের প্রতি আমার দুর্বলতা রয়েছে। তাই সবাইকে আগামী দিনে আরও ভালো কাজ উপহার দিতে চাই। দর্শক – ভক্তের ভালোবাসা ও দোয়া থাকলে আমি অবশ্যই একজন সুদক্ষ অভিনয়শিল্পী হয়ে আমার স্বপ্নের উচ্চতায় পৌঁছুতে পারবো বলেই বিশ্বাস করি।