ঢাকা ০৭:০০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাহমুদউল্লাহর ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন পাপন

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৯:৫৫:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • 46

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের টেস্ট অবসরের কথা শুনেই খেপেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবি সভাপতি সেই ইস্যুতে আরও একবার ক্ষোভ ঝাড়লেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়কের ওপর।

তামিমের আচরণ ও সিদ্ধান্ত নেয়ার সাথে রিয়াদের জিম্বাবুয়ে গিয়ে সিদ্ধান্ত পাল্টানোর তুলনা করে তীব্র সমালোচনা করতেও ছাড়েননি আজ।

পাপন বলেন, ‘মাহমুদউল্লাহ কিন্তু টেস্ট দলে ছিল না। ওকে আমার বাসায় নিয়ে বসেছিলাম। জিজ্ঞেস করেছি বারবার, টেস্টে সে আগ্রহী কি না। আমার জানামতে, সে তিন সংস্করণের মধ্যে সবচেয়ে উপযুক্ত টেস্ট পারফরমার। সে আমাকে প্রতিবার বলেছে, খুব আগ্রহী টেস্ট খেলতে। আমরা বলেছিলাম কে কোন সংস্করণ খেলবে লিখিত দাও। রিয়াদ লিখে দিয়েছে, টেস্ট খেলবে যদি দলে নেওয়া হয়। সে কিন্তু পরে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল দলে।’

বিসিবি সভাপতি যোগ করেন, ‘এত কিছুর পর তাকে যখন পাঠানো হলো, সে যখন ঘোষণাটা দিলো, এটা একেবারে অপ্রত্যাশিত ছিল। তামিমের সঙ্গে এটা মেলাতে পারছি না। তামিমেরটা আমাদের জানা ছিল। রিয়াদেরটা অপ্রত্যাশিত। এভাবে উচিত নয়। এভাবে আকস্মিক কোনো খেলোয়াড় ঘোষণা দিতে পারে না।’

তাহলে কি মাহমুদউল্লাহ বিসিবির লাল বলে চুক্তিতে থাকবেন? এমন প্রশ্নে পাপনের উত্তর, ‘ক্রিকেটারদের সঙ্গে চুক্তিটা মে থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত। এতে অনেকে আছে, অনেকে নেই। তামিম যেহেতু বলছে, টি টোয়েন্টিতে নেই সে। আবার ওয়ানডে, টেস্টে আছে। রিয়াদ যেহেতু ওখানে ঘোষণা দিয়েছে, এখনও সামনাসামনি কিছু বলেনি যে, সে টেস্টে নেই। তাই রিয়াদ যদি খেলে, তাহলে অন্তর্ভুক্ত হবে।’

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

মাহমুদউল্লাহর ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন পাপন

প্রকাশিত: ০৯:৫৫:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর ২০২১

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের টেস্ট অবসরের কথা শুনেই খেপেছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবি সভাপতি সেই ইস্যুতে আরও একবার ক্ষোভ ঝাড়লেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়কের ওপর।

তামিমের আচরণ ও সিদ্ধান্ত নেয়ার সাথে রিয়াদের জিম্বাবুয়ে গিয়ে সিদ্ধান্ত পাল্টানোর তুলনা করে তীব্র সমালোচনা করতেও ছাড়েননি আজ।

পাপন বলেন, ‘মাহমুদউল্লাহ কিন্তু টেস্ট দলে ছিল না। ওকে আমার বাসায় নিয়ে বসেছিলাম। জিজ্ঞেস করেছি বারবার, টেস্টে সে আগ্রহী কি না। আমার জানামতে, সে তিন সংস্করণের মধ্যে সবচেয়ে উপযুক্ত টেস্ট পারফরমার। সে আমাকে প্রতিবার বলেছে, খুব আগ্রহী টেস্ট খেলতে। আমরা বলেছিলাম কে কোন সংস্করণ খেলবে লিখিত দাও। রিয়াদ লিখে দিয়েছে, টেস্ট খেলবে যদি দলে নেওয়া হয়। সে কিন্তু পরে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল দলে।’

বিসিবি সভাপতি যোগ করেন, ‘এত কিছুর পর তাকে যখন পাঠানো হলো, সে যখন ঘোষণাটা দিলো, এটা একেবারে অপ্রত্যাশিত ছিল। তামিমের সঙ্গে এটা মেলাতে পারছি না। তামিমেরটা আমাদের জানা ছিল। রিয়াদেরটা অপ্রত্যাশিত। এভাবে উচিত নয়। এভাবে আকস্মিক কোনো খেলোয়াড় ঘোষণা দিতে পারে না।’

তাহলে কি মাহমুদউল্লাহ বিসিবির লাল বলে চুক্তিতে থাকবেন? এমন প্রশ্নে পাপনের উত্তর, ‘ক্রিকেটারদের সঙ্গে চুক্তিটা মে থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত। এতে অনেকে আছে, অনেকে নেই। তামিম যেহেতু বলছে, টি টোয়েন্টিতে নেই সে। আবার ওয়ানডে, টেস্টে আছে। রিয়াদ যেহেতু ওখানে ঘোষণা দিয়েছে, এখনও সামনাসামনি কিছু বলেনি যে, সে টেস্টে নেই। তাই রিয়াদ যদি খেলে, তাহলে অন্তর্ভুক্ত হবে।’