ঢাকা ০৮:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তালেবান সরকারকে স্বাগত জানালো চীন

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৭:৪৩:০৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • 53

আফগানিস্তানে গঠিত তালেবানের নতুন অন্তর্বর্তীকালীন সরকারকে স্বাগত জানালো চীন। নতুন সরকার গঠনের মাধ্যমে আফগানিস্তানে তিন সপ্তাহ ধরে চলা নৈরাজ্যের অবসান হয়েছে বলে মনে করছে চীন। একই সঙ্গে আফগানিস্তানে শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য তালেবানের নতুন সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে চীন। খবর আল জাজিরার

আফগানিস্তান থেকে তাড়াহুড়ো করে মার্কিন সৈন্য এবং নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়াকে পূর্ব পরিকল্পিত বলে এর কঠোর সমালোচনা করে চীন। তালেবান সরকার আফগানিস্তানে দীর্ঘমেয়াদি শান্তি ফিরিয়ে আনবে বলে বুধবার আশাবাদ ব্যক্ত করে চীন।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আফগানিস্তানে তালেবান অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠনকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে চীন। এ সরকার আফগানিস্তানে শান্তি ফিরিয়ে আনতে কাজ করবে।

যদিও বিশ্বের অধিকাংশ দেশ তালেবানের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়বে কিনা সেটি নিয়ে সংশয়ে আছে। তবে তালেবান আফগানিস্তান দখলে নেওয়ার পরই চীন তাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কে গড়ে তোলার ঘোষণা দেয়।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

তালেবান সরকারকে স্বাগত জানালো চীন

প্রকাশিত: ০৭:৪৩:০৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

আফগানিস্তানে গঠিত তালেবানের নতুন অন্তর্বর্তীকালীন সরকারকে স্বাগত জানালো চীন। নতুন সরকার গঠনের মাধ্যমে আফগানিস্তানে তিন সপ্তাহ ধরে চলা নৈরাজ্যের অবসান হয়েছে বলে মনে করছে চীন। একই সঙ্গে আফগানিস্তানে শান্তি ফিরিয়ে আনার জন্য তালেবানের নতুন সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে চীন। খবর আল জাজিরার

আফগানিস্তান থেকে তাড়াহুড়ো করে মার্কিন সৈন্য এবং নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়াকে পূর্ব পরিকল্পিত বলে এর কঠোর সমালোচনা করে চীন। তালেবান সরকার আফগানিস্তানে দীর্ঘমেয়াদি শান্তি ফিরিয়ে আনবে বলে বুধবার আশাবাদ ব্যক্ত করে চীন।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আফগানিস্তানে তালেবান অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠনকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে চীন। এ সরকার আফগানিস্তানে শান্তি ফিরিয়ে আনতে কাজ করবে।

যদিও বিশ্বের অধিকাংশ দেশ তালেবানের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়বে কিনা সেটি নিয়ে সংশয়ে আছে। তবে তালেবান আফগানিস্তান দখলে নেওয়ার পরই চীন তাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কে গড়ে তোলার ঘোষণা দেয়।