ঢাকা ০৫:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিক্ষা আন্দোলন নিঃসন্দেহে ইতিহাসের বাঁক ফেরানো ঘটনা : মঞ্জুর হোসেন ঈসা

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৪:১৫:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
  • 120

বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন , ৬২’র শিক্ষা আন্দোলনের পথ ধরেই স্বাধীন বাংলাদেশ। অধিকার ও গণতন্ত্রের লড়াইয়ে প্রতিষ্ঠায় শিক্ষা আন্দোলন অনুপ্রেরনা যোগায়। বাঙালির স্বাধিকার আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে, এ শিক্ষা আন্দোলন নিঃসন্দেহে ইতিহাসের বাঁক ফেরানো ঘটনা।
শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা দিবস উপলক্ষে হাইকোর্ট মোড়ে শিক্ষা চত্বরে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা’র পক্ষ থেকে ১৯৬২’র শিক্ষা আন্দোলনে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মানবাধিকার নেতা এইচ এম বিল্লাল হোসেন রাজু,বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির দপ্তর উপ কমিটির সদস্য মারুফ সরকার’সহ দলের নেতৃবৃন্দ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ফলে শিক্ষায় সবার অধিকারের সাংবিধানিক স্বীকৃতি এসেছে, কিন্তু মুক্ত প্রতিযোগিতায় বাজারই নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় এসে যাওয়ায় শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ ঠেকানো যায়নি। ’৬২-র আন্দোলন যেমন পাকিস্তানি শাসন শোষণ থেকে এদেশের নিপীড়িত মানুষকে মুক্তির পথ দেখিয়েছে তেমনই আজও ’৬২-সম একটি ঐক্যবদ্ধ শিক্ষা আন্দোলন বাংলাদেশকে নতুন করে পথ দেখাতে পারে।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

শিক্ষা আন্দোলন নিঃসন্দেহে ইতিহাসের বাঁক ফেরানো ঘটনা : মঞ্জুর হোসেন ঈসা

প্রকাশিত: ০৪:১৫:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন , ৬২’র শিক্ষা আন্দোলনের পথ ধরেই স্বাধীন বাংলাদেশ। অধিকার ও গণতন্ত্রের লড়াইয়ে প্রতিষ্ঠায় শিক্ষা আন্দোলন অনুপ্রেরনা যোগায়। বাঙালির স্বাধিকার আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে, এ শিক্ষা আন্দোলন নিঃসন্দেহে ইতিহাসের বাঁক ফেরানো ঘটনা।
শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা দিবস উপলক্ষে হাইকোর্ট মোড়ে শিক্ষা চত্বরে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপা’র পক্ষ থেকে ১৯৬২’র শিক্ষা আন্দোলনে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মানবাধিকার নেতা এইচ এম বিল্লাল হোসেন রাজু,বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির দপ্তর উপ কমিটির সদস্য মারুফ সরকার’সহ দলের নেতৃবৃন্দ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ফলে শিক্ষায় সবার অধিকারের সাংবিধানিক স্বীকৃতি এসেছে, কিন্তু মুক্ত প্রতিযোগিতায় বাজারই নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় এসে যাওয়ায় শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ ঠেকানো যায়নি। ’৬২-র আন্দোলন যেমন পাকিস্তানি শাসন শোষণ থেকে এদেশের নিপীড়িত মানুষকে মুক্তির পথ দেখিয়েছে তেমনই আজও ’৬২-সম একটি ঐক্যবদ্ধ শিক্ষা আন্দোলন বাংলাদেশকে নতুন করে পথ দেখাতে পারে।