ঢাকা ০৭:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১ নং ভদ্রঘাট ইউপি নির্বাচনে আওয়ামলীগের মনোনয়ন তুললেন রাজিব

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৫:২৫:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ নভেম্বর ২০২১
  • 60

মারুফ সরকার : আগামী ২৩ ডিসেম্বার সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার ১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে । আর নির্বাচন উপলক্ষে আজ সোমবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউ গুলিস্তান কেন্দ্রীয় কার্যালয় হতে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন তুললেন ভদ্রঘাট ইউনিয়নের সবার চোখের মনি ভদ্রঘাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি ও কামারখন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি সর্বকনিষ্ট প্রার্থী মো: সম্রাট বিপ্লব খান রাজিব ।

মনোনয়ন তুলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যাতে করে আমি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাই ।

১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়ন আওয়ামলীগের মনোনয়ন তুলেছেন ৮ জন ।এর মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী তিনি। তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ব হয়ে তরুন প্রজন্মকে সু-সংগঠিত করে ১ নং ভদ্রঘাট ইউপি’তে নৌকা প্রতীকের বিজয় সুনিশ্চত করতে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে ভদ্রঘাট ইউপি নির্বাচনী এলাকায় দ্বারে দ্বারে গিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন বার্তা পৌছে দেওয়ার জন্য এলাকায় সার্বক্ষানিক দলের হয়ে কাজ করছেন।

আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান রাজিব এলাকায় শুধু দলের ভিতরে নয় সাধারন মানুষের মন জয় করেছেন এই তরুন নেতা। তার বিশ্বাস ভদ্রঘাট ইউপি’র আওয়ামীলীগের বিজয় সুনিশ্চিত করতে উপযুক্ত প্রার্থী বাছাই করবেন দলের হাই কমান্ড।

তরুন এই নেতা নানামুখী প্রচারে নির্বাচনী শোডাউন, উঠোন বৈঠক, গণসংযোগ, ব্যানার, পোষ্টার, শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের লিফলেট ও নানা রংয়ের বিলর্বোড এর মাধ্যমে নিজের শক্ত অবস্থানের জানান দিয়েছেন। করোনাকালীন ও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুযোগের সময় তিনি নিজস্ব অর্থায়নে দুঃস্থ ও অসহায় হাজারো মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেছেন।

শিক্ষিত ও ক্লীন ইমেজের করণে ইতিমধ্যেই তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন। বিশেষ করে তাঁর বিনয়ী আচরণ দ্বারা স্থানীয় নেতা কর্মীসহ সর্ব সাধারনকে তিনি কাছে টানতে সক্ষম হয়েছেন। তাই এলাকার মানুষ তার উপরে দৃঢ় আস্থা ও বিশ্বাস রাখতে শুরু করছেন এবং ইউপিতে নৌকার বিজয় সুনিশ্চি করার লক্ষ্যে দল তাকেই ১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়নের নৌকার কান্ডারী হিসেবে মনোনয়ন দিবেন বলে তিনি আশাবাদী।

প্রতিবেদককে রাজিব বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে মনোনয়ন দেন তাহলে ভদ্রঘাট ইউপির ব্যাপক উন্নয়ন ও এলাকাবাসির ভাগ্য উন্নয়নের জন্য কাজ করবো। সেই সাথে ইউনিয়ন থেকে দুর্নীতির কালিমা মোচন করে জনগনের সমস্যা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করব। এবং ১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়ন পরিষদকে ডিজিটাল ইউনিয়নে রুপান্তরিত করবো ।

আমার এলাকার জনসাধারন আমাকে ব্যাপক সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন, আশা করি সবকিছু বিবেচনা করে আওমীলীগ সভানেত্রী রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা আমাকে অবশ্যই মনোনয়ন দেবেন।

আমি যদি মনোনয়ন পাই তাহলে অবশ্যই জয়লাভ করব এবং আমার এলাকার প্রতিটি ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলবো। সর্বকনিষ্ঠ এই প্রার্থী ইতিমধ্যে তার নির্বাচনী এলাকার সাধারণ মানুষের সুখে-দু:খে পাশে থেকে এক অন্যরকম সাড়া জাগিয়েছেন।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

১ নং ভদ্রঘাট ইউপি নির্বাচনে আওয়ামলীগের মনোনয়ন তুললেন রাজিব

প্রকাশিত: ০৫:২৫:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ নভেম্বর ২০২১

মারুফ সরকার : আগামী ২৩ ডিসেম্বার সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার ১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে । আর নির্বাচন উপলক্ষে আজ সোমবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউ গুলিস্তান কেন্দ্রীয় কার্যালয় হতে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন তুললেন ভদ্রঘাট ইউনিয়নের সবার চোখের মনি ভদ্রঘাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সফল সভাপতি ও কামারখন্দ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি সর্বকনিষ্ট প্রার্থী মো: সম্রাট বিপ্লব খান রাজিব ।

মনোনয়ন তুলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যাতে করে আমি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাই ।

১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়ন আওয়ামলীগের মনোনয়ন তুলেছেন ৮ জন ।এর মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী তিনি। তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ব হয়ে তরুন প্রজন্মকে সু-সংগঠিত করে ১ নং ভদ্রঘাট ইউপি’তে নৌকা প্রতীকের বিজয় সুনিশ্চত করতে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে ভদ্রঘাট ইউপি নির্বাচনী এলাকায় দ্বারে দ্বারে গিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন বার্তা পৌছে দেওয়ার জন্য এলাকায় সার্বক্ষানিক দলের হয়ে কাজ করছেন।

আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান রাজিব এলাকায় শুধু দলের ভিতরে নয় সাধারন মানুষের মন জয় করেছেন এই তরুন নেতা। তার বিশ্বাস ভদ্রঘাট ইউপি’র আওয়ামীলীগের বিজয় সুনিশ্চিত করতে উপযুক্ত প্রার্থী বাছাই করবেন দলের হাই কমান্ড।

তরুন এই নেতা নানামুখী প্রচারে নির্বাচনী শোডাউন, উঠোন বৈঠক, গণসংযোগ, ব্যানার, পোষ্টার, শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের লিফলেট ও নানা রংয়ের বিলর্বোড এর মাধ্যমে নিজের শক্ত অবস্থানের জানান দিয়েছেন। করোনাকালীন ও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুযোগের সময় তিনি নিজস্ব অর্থায়নে দুঃস্থ ও অসহায় হাজারো মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেছেন।

শিক্ষিত ও ক্লীন ইমেজের করণে ইতিমধ্যেই তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন। বিশেষ করে তাঁর বিনয়ী আচরণ দ্বারা স্থানীয় নেতা কর্মীসহ সর্ব সাধারনকে তিনি কাছে টানতে সক্ষম হয়েছেন। তাই এলাকার মানুষ তার উপরে দৃঢ় আস্থা ও বিশ্বাস রাখতে শুরু করছেন এবং ইউপিতে নৌকার বিজয় সুনিশ্চি করার লক্ষ্যে দল তাকেই ১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়নের নৌকার কান্ডারী হিসেবে মনোনয়ন দিবেন বলে তিনি আশাবাদী।

প্রতিবেদককে রাজিব বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে মনোনয়ন দেন তাহলে ভদ্রঘাট ইউপির ব্যাপক উন্নয়ন ও এলাকাবাসির ভাগ্য উন্নয়নের জন্য কাজ করবো। সেই সাথে ইউনিয়ন থেকে দুর্নীতির কালিমা মোচন করে জনগনের সমস্যা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করব। এবং ১ নং ভদ্রঘাট ইউনিয়ন পরিষদকে ডিজিটাল ইউনিয়নে রুপান্তরিত করবো ।

আমার এলাকার জনসাধারন আমাকে ব্যাপক সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন, আশা করি সবকিছু বিবেচনা করে আওমীলীগ সভানেত্রী রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা আমাকে অবশ্যই মনোনয়ন দেবেন।

আমি যদি মনোনয়ন পাই তাহলে অবশ্যই জয়লাভ করব এবং আমার এলাকার প্রতিটি ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তুলবো। সর্বকনিষ্ঠ এই প্রার্থী ইতিমধ্যে তার নির্বাচনী এলাকার সাধারণ মানুষের সুখে-দু:খে পাশে থেকে এক অন্যরকম সাড়া জাগিয়েছেন।