ঢাকা ০৩:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাড়ি থেকে টিসিবির পণ্য উদ্ধার, ১ লাখ টাকা গুনলেন ডিলার

লক্ষ্মীপুরে অবৈধভাবে প্রায় ৩০০ কেজি টিসিবি পণ্য মজুদ রাখার দায়ে পরিবেশক (ডিলার) এসএম দিদার হোসেন মামুনের ১ লাখ টাকা জারিমানা করা হয়েছে।

শনিবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ইমরান হোসেন এ আদেশ দেয়।

এর আগে দুপুরে সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের পশ্চিম মান্দারী গ্রামের মুদি ব্যবসায়ী পাবেলের বাড়ি থেকে অভিযান চালিয়ে পণ্যগুলো জব্দ করা হয়। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই) সংস্থার তথ্য অনুযায়ী ওই বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় মান্দারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন রুবেল পাটওয়ারী ও ইউপি সদস্য মমিন উল্যা উপস্থিত ছিলেন।

জরিমানাপ্রাপ্ত মামুন রায়পুর ও রামগতি উপজেলার টিসিবির পরিবেশক। তিনি মান্দারী ইউনিয়নের মোহাম্মদনগর গ্রামের বাসিন্দা।

উপজেলা প্রশাসন জানায়, পশ্চিম মান্দারী গ্রামের কুরুজি বাড়িতে পরিবেশক মামুন তার আত্মীয় মুদি ব্যবসায়ী পাবেলের ঘরে অবৈধভাবে টিসিবি পণ্য রেখেছিল। বিষয়টি স্থানীয়রা এনএসআইকে জানায়। পরে তাদের তথ্যমতে সদরের ইউএনও ইমরান হোসেন ওই বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন। সেখান থেকে ২০০ কেজি ডাল, ৪০ কেজি চিনি ও ৬২ লিটার তেল উদ্ধার করা হয়। জব্দকৃত পণ্য রামগতি উপজেলায় পাঠানো হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে টিসিবি পরিবেশক মামুনের ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তার টিসিবি পরিবেশকের লাইসেন্স বাতিলের জন্য সুপারিশ করা হবে বলে জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

মান্দারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন রুবেল পাটওয়ারী বলেন, অবৈধভাবে মামুন তার আত্মীয়ের বাড়িতে টিসিবি পণ্য মজুদ রেখেছিল। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে মজুদকৃত পণ্য উদ্ধার করা হয়। পরে মামুনের ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

প্রতিনিধি/একেবি

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

অনলাইন ডেস্ক

জনপ্রিয়

বাড়ি থেকে টিসিবির পণ্য উদ্ধার, ১ লাখ টাকা গুনলেন ডিলার

প্রকাশিত: ০৯:৩৬:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২২

লক্ষ্মীপুরে অবৈধভাবে প্রায় ৩০০ কেজি টিসিবি পণ্য মজুদ রাখার দায়ে পরিবেশক (ডিলার) এসএম দিদার হোসেন মামুনের ১ লাখ টাকা জারিমানা করা হয়েছে।

শনিবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ইমরান হোসেন এ আদেশ দেয়।

এর আগে দুপুরে সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের পশ্চিম মান্দারী গ্রামের মুদি ব্যবসায়ী পাবেলের বাড়ি থেকে অভিযান চালিয়ে পণ্যগুলো জব্দ করা হয়। জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই) সংস্থার তথ্য অনুযায়ী ওই বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় মান্দারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন রুবেল পাটওয়ারী ও ইউপি সদস্য মমিন উল্যা উপস্থিত ছিলেন।

জরিমানাপ্রাপ্ত মামুন রায়পুর ও রামগতি উপজেলার টিসিবির পরিবেশক। তিনি মান্দারী ইউনিয়নের মোহাম্মদনগর গ্রামের বাসিন্দা।

উপজেলা প্রশাসন জানায়, পশ্চিম মান্দারী গ্রামের কুরুজি বাড়িতে পরিবেশক মামুন তার আত্মীয় মুদি ব্যবসায়ী পাবেলের ঘরে অবৈধভাবে টিসিবি পণ্য রেখেছিল। বিষয়টি স্থানীয়রা এনএসআইকে জানায়। পরে তাদের তথ্যমতে সদরের ইউএনও ইমরান হোসেন ওই বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন। সেখান থেকে ২০০ কেজি ডাল, ৪০ কেজি চিনি ও ৬২ লিটার তেল উদ্ধার করা হয়। জব্দকৃত পণ্য রামগতি উপজেলায় পাঠানো হয়েছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে টিসিবি পরিবেশক মামুনের ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তার টিসিবি পরিবেশকের লাইসেন্স বাতিলের জন্য সুপারিশ করা হবে বলে জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

মান্দারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন রুবেল পাটওয়ারী বলেন, অবৈধভাবে মামুন তার আত্মীয়ের বাড়িতে টিসিবি পণ্য মজুদ রেখেছিল। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে মজুদকৃত পণ্য উদ্ধার করা হয়। পরে মামুনের ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

প্রতিনিধি/একেবি