ঢাকা ০৭:০৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এ দেশের মানুষ গণতান্ত্রিক সরকার দেখতে চায় : খন্দকার মোশাররফ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, গত ১৫ বছর ধরে এ দেশের মানুষ ভোট দিতে ভুলে গেছে। বর্তমান স্বৈরাচার সরকার মানুষের ভোটের অধিকার হরণ করেছে। এ দেশের মানুষ এখন তাদের ভোটের অধিকার ফিরে পেতে চায়। কোনো স্বৈরাচার নয়, তারা গণতান্ত্রিক সরকার চায়।

শনিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কুমিল্লা টাউনহল মাঠে বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, এই সরকার রাজনৈতিকভাবে এতোটাই দেউলিয়া হয়ে গেছে যে আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে আসতে দেয় না। এই সরকার ভয় পায়। আমরাও বুঝে গেছি, এই সরকার যতদিন ক্ষমতায় আছে তারেক রহমানকে ততদিন দেশে আনা সম্ভব হবে না। আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটিয়ে তারেক রহমানকে আমরা দেশে ফিরিয়ে আনব। ততদিন আমাদের আন্দোলন চলবে।

ওয়ার্কআউট করছে কাজলের ৯ মাসের ছেলে
ওয়ার্কআউট করছে কাজলের ৯ মাসের ছেলে
বিস্তারিত পড়ুন
তিনি বলেন, এই সরকারের এতো দমন, নির্যাতন, মামলা, হামলাকে বিএনপির নেতাকর্মীরা এখন আর ভয় পায় না। বিএনপির কর্মসূচিগুলোতে নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণ সেটাই প্রমাণ করে। আজও সারা দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে সমাবেশ হচ্ছে, লাখ লাখ লোক সমাবেশে অংশ নিচ্ছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, এই সরকার প্রাইমারি থেকে হাই স্কুলের সব পাঠ্যপুস্তকে পরিবর্তন এনেছে। পেপার-পত্রিকা খুললেই দেখা যায়, পাঠ্যপুস্তকগুলোতে আমাদের দেশীয় সংস্কৃতি, আমাদের সমাজব্যবস্থাকে ভূলুণ্ঠিত করেছে। পাঠ্যপুস্তকগুলোতে দেশের ইতিহাসকে বিকৃত করে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ভুল ইতিহাস শেখাচ্ছে। অতএব, এ দেশের জনগণ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যারা গণতন্ত্র হত্যা করেছে, তারা গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিতে পারবে না। এই সরকার ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতা দখল করেছে, তারা কখনো ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে পারবে না। দেশের অর্থনীতিকে যারা ধ্বংস করেছে, অর্থনীতিকেও তারা কখনো মেরামত করতে পারবে না।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, আপনারা দেখেছেন ২০-২৫ দিন আগে একবার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করেছে। এখন আবার নতুন করে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করেছে। দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত ঊর্ধ্বগতি, তার লাগাম টানতে পারছে না সরকার। গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করেছে, নিত্যপ্রয়োজনীয় সব পণ্যের দাম বৃদ্ধি করেছে। এর প্রভাব কার ওপর পড়ছে? এ দেশের সাধারণ মানুষের ওপর পড়ছে। অথচ তারা জনগণের টাকা লুট করে বিদেশে পাচার করছে। একেকজন বড়লোক থেকে আরও বড়লোক হচ্ছে। এই কারণে দ্রব্যমূল্যের এত ঊর্ধ্বগতি। তারা যা লুটপাট করেছে, দ্রব্যমূল্যের আজ যে ঊর্ধ্বগতি, তা আর এই সরকার কমাতে পারবে না।

বক্তব্য শেষে তিনি ১১ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারা দেশে ইউনিয়ন পর্যায়ে গণপদযাত্রা কর্মসূচির ঘোষণা করেন।

এসময় বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মোশতাক মিয়া, বিএনপির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক হাজী আমিনূর রশিদ ইয়াসিন, বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সায়েদুল হক সাঈদসহ জেলা বিএনপির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

অনলাইন ডেস্ক

জনপ্রিয়

এ দেশের মানুষ গণতান্ত্রিক সরকার দেখতে চায় : খন্দকার মোশাররফ

প্রকাশিত: ০৬:৫৯:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, গত ১৫ বছর ধরে এ দেশের মানুষ ভোট দিতে ভুলে গেছে। বর্তমান স্বৈরাচার সরকার মানুষের ভোটের অধিকার হরণ করেছে। এ দেশের মানুষ এখন তাদের ভোটের অধিকার ফিরে পেতে চায়। কোনো স্বৈরাচার নয়, তারা গণতান্ত্রিক সরকার চায়।

শনিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কুমিল্লা টাউনহল মাঠে বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, এই সরকার রাজনৈতিকভাবে এতোটাই দেউলিয়া হয়ে গেছে যে আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে আসতে দেয় না। এই সরকার ভয় পায়। আমরাও বুঝে গেছি, এই সরকার যতদিন ক্ষমতায় আছে তারেক রহমানকে ততদিন দেশে আনা সম্ভব হবে না। আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটিয়ে তারেক রহমানকে আমরা দেশে ফিরিয়ে আনব। ততদিন আমাদের আন্দোলন চলবে।

ওয়ার্কআউট করছে কাজলের ৯ মাসের ছেলে
ওয়ার্কআউট করছে কাজলের ৯ মাসের ছেলে
বিস্তারিত পড়ুন
তিনি বলেন, এই সরকারের এতো দমন, নির্যাতন, মামলা, হামলাকে বিএনপির নেতাকর্মীরা এখন আর ভয় পায় না। বিএনপির কর্মসূচিগুলোতে নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণ সেটাই প্রমাণ করে। আজও সারা দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে সমাবেশ হচ্ছে, লাখ লাখ লোক সমাবেশে অংশ নিচ্ছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, এই সরকার প্রাইমারি থেকে হাই স্কুলের সব পাঠ্যপুস্তকে পরিবর্তন এনেছে। পেপার-পত্রিকা খুললেই দেখা যায়, পাঠ্যপুস্তকগুলোতে আমাদের দেশীয় সংস্কৃতি, আমাদের সমাজব্যবস্থাকে ভূলুণ্ঠিত করেছে। পাঠ্যপুস্তকগুলোতে দেশের ইতিহাসকে বিকৃত করে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ভুল ইতিহাস শেখাচ্ছে। অতএব, এ দেশের জনগণ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যারা গণতন্ত্র হত্যা করেছে, তারা গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিতে পারবে না। এই সরকার ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতা দখল করেছে, তারা কখনো ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে পারবে না। দেশের অর্থনীতিকে যারা ধ্বংস করেছে, অর্থনীতিকেও তারা কখনো মেরামত করতে পারবে না।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, আপনারা দেখেছেন ২০-২৫ দিন আগে একবার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করেছে। এখন আবার নতুন করে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করেছে। দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত ঊর্ধ্বগতি, তার লাগাম টানতে পারছে না সরকার। গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করেছে, নিত্যপ্রয়োজনীয় সব পণ্যের দাম বৃদ্ধি করেছে। এর প্রভাব কার ওপর পড়ছে? এ দেশের সাধারণ মানুষের ওপর পড়ছে। অথচ তারা জনগণের টাকা লুট করে বিদেশে পাচার করছে। একেকজন বড়লোক থেকে আরও বড়লোক হচ্ছে। এই কারণে দ্রব্যমূল্যের এত ঊর্ধ্বগতি। তারা যা লুটপাট করেছে, দ্রব্যমূল্যের আজ যে ঊর্ধ্বগতি, তা আর এই সরকার কমাতে পারবে না।

বক্তব্য শেষে তিনি ১১ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারা দেশে ইউনিয়ন পর্যায়ে গণপদযাত্রা কর্মসূচির ঘোষণা করেন।

এসময় বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মোশতাক মিয়া, বিএনপির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক হাজী আমিনূর রশিদ ইয়াসিন, বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সায়েদুল হক সাঈদসহ জেলা বিএনপির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।