ঢাকা ১২:১৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১৫ই আগষ্টের কুশীলবরা এখনো সক্রিয়: মিজানুর রহমান মিজু

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০২:৫০:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অগাস্ট ২০২১
  • 30

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যারা সপরিবারে হত্যা করেছিল সেই ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো সক্রিয রয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু।

আজ ১৫ই আগষ্ট ২০২১ রোববার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্য জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি (জেএসপি) কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে সকাল ১০ টায় রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিজানুর রহমান মিজু এ অভিযোগ করেন ।

তিনি বলেন, “৭৫’র ১৫ই আগষ্ট বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে অন্ধকার দিন। সেদিন ষড়যন্ত্রকারী শুধু বঙ্গবন্ধুকেই সপরিবারে হত্যা করে হত্যা করেছিল স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নকে। তাদের মূল উদ্দেশ্যই ছিল বাংলাদেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করা। স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসে তাদের সেই ষড়যন্ত্র থেমে নেই। এখনো তাদের সেই ষড়যন্ত্র চলছে।”

এসময় মিজানুর রহমান মিজু বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে দলমত নির্বিশেষে সকলকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান রতন কৃষ্ণ ধর, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব দীপক কুমার পালিত, ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার সুভাষ গুহ, সাংগঠনিক সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, যুগ্ম মহাসচিব সি.এম মানিক প্রমুখ।

এছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর শাখার উদ্যোগে চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি সুজিত সরকার ও সাধারণ সম্পাদক সজল মজুমদারের নেতৃত্বে সকাল ৯:৩০ টায় শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

শোক দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি ঝিনাইদহ জেলা শাখার উদ্যোগে ঝিনাইদহ শহরের মুজিব চত্বরে সকাল ১০ টায় জেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুল হান্নান ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মিলনের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কালুহাটি আফসর কমপ্লেক্সে দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়াও খুলনা, সাতক্ষীরাসহ বিভিন্ন জেলায় জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

১৫ই আগষ্টের কুশীলবরা এখনো সক্রিয়: মিজানুর রহমান মিজু

প্রকাশিত: ০২:৫০:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অগাস্ট ২০২১

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যারা সপরিবারে হত্যা করেছিল সেই ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো সক্রিয রয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু।

আজ ১৫ই আগষ্ট ২০২১ রোববার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্য জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি (জেএসপি) কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে সকাল ১০ টায় রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিজানুর রহমান মিজু এ অভিযোগ করেন ।

তিনি বলেন, “৭৫’র ১৫ই আগষ্ট বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে অন্ধকার দিন। সেদিন ষড়যন্ত্রকারী শুধু বঙ্গবন্ধুকেই সপরিবারে হত্যা করে হত্যা করেছিল স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নকে। তাদের মূল উদ্দেশ্যই ছিল বাংলাদেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করা। স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসে তাদের সেই ষড়যন্ত্র থেমে নেই। এখনো তাদের সেই ষড়যন্ত্র চলছে।”

এসময় মিজানুর রহমান মিজু বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে দলমত নির্বিশেষে সকলকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান রতন কৃষ্ণ ধর, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব দীপক কুমার পালিত, ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার সুভাষ গুহ, সাংগঠনিক সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, যুগ্ম মহাসচিব সি.এম মানিক প্রমুখ।

এছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর শাখার উদ্যোগে চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি সুজিত সরকার ও সাধারণ সম্পাদক সজল মজুমদারের নেতৃত্বে সকাল ৯:৩০ টায় শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

শোক দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি ঝিনাইদহ জেলা শাখার উদ্যোগে ঝিনাইদহ শহরের মুজিব চত্বরে সকাল ১০ টায় জেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুল হান্নান ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মিলনের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কালুহাটি আফসর কমপ্লেক্সে দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়াও খুলনা, সাতক্ষীরাসহ বিভিন্ন জেলায় জাতীয় স্বাধীনতা পার্টির উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়।