ঢাকা ০২:০৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল

  • Golam Faruk
  • প্রকাশিত: ০৪:১৯:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অগাস্ট ২০২১
  • 30

করোনা পরিস্থিতির কারণে দেশে তাজিয়া মিছিল বন্ধ ঘোষণা করলেও তা উপেক্ষা করেছে শিয়া সম্প্রদায়। পবিত্র আশুরা উপলক্ষে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল বের করেছে তারা। শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে পুরানো ঢাকার ইমামবাড়া হোসেনি দালান থেকে তাজিয়া মিছিলটি বের হয়ে চকবাজার, লালবাগ, আজিমপুর, নিউ মার্কেট হয়ে জিগাতলা বাসস্ট্যান্ডের দিকে গিয়ে শেষ হয়।

এদিন তাজিয়া মিছিলে যারা এসেছেন তাদের বেশিরভাগেরই পরনে শোকের রঙ কালো পোশাক রয়েছে৷ পাশাপাশি তাদের হাতে আছে কালো, লাল রঙের আলাম বা নিশান। তাজিয়া মিছিলে যোগ দিয়ে শিয়া সম্প্রদায়ের অনুসারীরা বুক চাপড়িয়ে ‘হায় হোসেন’, ‘হায় হোসেন’ মাতম তুলছেন। তাদের মাতমে চারপাশের পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে৷

এ বিষয়ে লালবাগ বিভাগের ডিসি জসিম উদ্দিন মোল্লা জানান, করোনা বিধিনিষেধের কারণে রাজধানীতে শিয়া সম্প্রদায়ের তাজিয়া মিছিল নিষিদ্ধ। আমরা এখন পর্যন্ত কোথাও তাজিয়া মিছিল বের হওয়ার কোনো খবর পাইনি। কোনোভাবেই তাজিয়া মিছিল বের করতে দেওয়া হবে না। করোনার বিধিনিষেধ পরিপালনে কাজ করছে পুলিশ।

তবে কয়েকজায়গা মিছিল বের হওয়ার বিষয়ে তাকে অবগত করা হলে তিনি বলেন, আমি এখনই ব্যবস্থা নিচ্ছি। উল্লেখ্য, হিজরি ৬১ সনের ১০ মহররম এই দিনে মহানবী হযরত মুহম্মদের (সা.) দৌহিত্র হযরত ইমাম হোসাইন (রা.) এবং তার পরিবার ও অনুসারীরা সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে যুদ্ধ করতে গিয়ে ফোরাত নদীর তীরে কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে শহীদ হন।

এ ঘটনা স্মরণ করে বিশ্বমুসলিম যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনটি পালন করে থাকে। শান্তি ও সম্প্রীতির ধর্ম ইসলামের মহান আদর্শকে সমুন্নত রাখতে তাদের এই আত্মত্যাগ মানবতার ইতিহাসে সমুজ্জ্বল হয়ে রয়েছে।

বিষয় :
প্রতিবেদক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

Golam Faruk

জনপ্রিয়

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল

প্রকাশিত: ০৪:১৯:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অগাস্ট ২০২১

করোনা পরিস্থিতির কারণে দেশে তাজিয়া মিছিল বন্ধ ঘোষণা করলেও তা উপেক্ষা করেছে শিয়া সম্প্রদায়। পবিত্র আশুরা উপলক্ষে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল বের করেছে তারা। শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে পুরানো ঢাকার ইমামবাড়া হোসেনি দালান থেকে তাজিয়া মিছিলটি বের হয়ে চকবাজার, লালবাগ, আজিমপুর, নিউ মার্কেট হয়ে জিগাতলা বাসস্ট্যান্ডের দিকে গিয়ে শেষ হয়।

এদিন তাজিয়া মিছিলে যারা এসেছেন তাদের বেশিরভাগেরই পরনে শোকের রঙ কালো পোশাক রয়েছে৷ পাশাপাশি তাদের হাতে আছে কালো, লাল রঙের আলাম বা নিশান। তাজিয়া মিছিলে যোগ দিয়ে শিয়া সম্প্রদায়ের অনুসারীরা বুক চাপড়িয়ে ‘হায় হোসেন’, ‘হায় হোসেন’ মাতম তুলছেন। তাদের মাতমে চারপাশের পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে৷

এ বিষয়ে লালবাগ বিভাগের ডিসি জসিম উদ্দিন মোল্লা জানান, করোনা বিধিনিষেধের কারণে রাজধানীতে শিয়া সম্প্রদায়ের তাজিয়া মিছিল নিষিদ্ধ। আমরা এখন পর্যন্ত কোথাও তাজিয়া মিছিল বের হওয়ার কোনো খবর পাইনি। কোনোভাবেই তাজিয়া মিছিল বের করতে দেওয়া হবে না। করোনার বিধিনিষেধ পরিপালনে কাজ করছে পুলিশ।

তবে কয়েকজায়গা মিছিল বের হওয়ার বিষয়ে তাকে অবগত করা হলে তিনি বলেন, আমি এখনই ব্যবস্থা নিচ্ছি। উল্লেখ্য, হিজরি ৬১ সনের ১০ মহররম এই দিনে মহানবী হযরত মুহম্মদের (সা.) দৌহিত্র হযরত ইমাম হোসাইন (রা.) এবং তার পরিবার ও অনুসারীরা সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে যুদ্ধ করতে গিয়ে ফোরাত নদীর তীরে কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে শহীদ হন।

এ ঘটনা স্মরণ করে বিশ্বমুসলিম যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনটি পালন করে থাকে। শান্তি ও সম্প্রীতির ধর্ম ইসলামের মহান আদর্শকে সমুন্নত রাখতে তাদের এই আত্মত্যাগ মানবতার ইতিহাসে সমুজ্জ্বল হয়ে রয়েছে।